মাদক প্রতিরোধে আসছে ‘স্মার্ট বর্ডার ম্যানেজমেন্ট’

Tiger Logo T
নিজস্ব প্রতিবেদক

মহানগরীর নামীদামী একটি সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের তিনছাত্রী সম্প্রতি মাদক সেবনের ঘটনায় বহিস্কৃত হলে নড়েচড়ে বসে মাদক নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তর। এরপর জেলা প্রশাসন এলাকা ভিত্তিক মাদকমুক্ত করণের প্রস্তাব দেয়। আইন-শৃঙ্খলা কমিটির সভায় জেলা পুলিশ ফুলতলা উপজেলাকে মাদকমুক্ত করার ঘোষনা দেন। পাশাপাশি মেট্রোপলিটন পুলিশ শুরু করেছে মাদক বিক্রেতাদের তালিকা তৈরির কাজ।
তবে এসব প্রচেষ্টাকে বৃদ্ধাঙ্গলি দেখিয়ে মাদক পাচার যেমন বেড়েছে, তেমনি মাদকাসক্তদের সংখ্যাও বেড়েছে। এসব বিষয়কে মাথায় রেখে এবার মাদক পাচার প্রতিরোধ সময়োপযোগী সীমান্ত ব্যবস্থাপনায় ‘স্মার্ট বর্ডার ম্যানেজমেন্ট’ চালুর উদ্যোগ নিয়েছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। মাদক প্রতিরোধে সীমান্তে আধুনিক যন্ত্রপাতির মাধ্যমে সীমান্ত নিরাপত্তা শক্তিশালী করা হচ্ছে। সেই সাথে সীমান্তে চোরাচালান, অবৈধ অনুপ্রবেশ ও শিশু-নারী পাচার বন্ধে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। খুলনায় বিজিবি’র উর্ধ্বতন পর্যায়ে কর্মকর্তাদের এক সেমিনারে এসব কথা জানানো হয়। সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন রিজিয়ন কমান্ডার (যশোর) অতিরিক্ত মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল কাজী তৌফিকুল ইসলাম। আলোচনা করেন সেক্টর কমান্ডার খুলনা-২১ বিজিবি অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল মোঃ তারিকুল হাকিম, সাতক্ষীরার ৩৮ বিজিবি অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল মোঃ আরমান হোসেন, যশোর-৪৯ বিজিবি’র অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল মোহাম্মদ আরিফুল হক।
মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি)’র একজন উর্ধতন কর্মকর্তা জানান, মাদকের অনুপ্রবেশ চেক পোস্ট বসিয়ে রোধ করা সম্ভব না। কারণ এরা পুলিশের উপরে নজরদারী রেখে বিভিন্ন রুট ব্যবহারসহ অভিনব কৌশল ব্যবহার করে থাকে। এ কারণে সীমান্ত পথে মাদক পাচার বন্ধে কঠোর পদক্ষেপ নিতে হবে। জানা যায়, মাদক প্রতিরোধে সীমান্তে আধুনিক যন্ত্রপাতি স্থাপনসহ জনগন ও প্রশাসনের ঐক্যবদ্ধ প্রয়াসের ওপর গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে সীমান্ত ব্যবস্থাপনা স্মার্ট বর্ডার ম্যানেজমেন্টে।

আপনার মতামত



close