জঙ্গি সন্দেহে শাবিপ্রবির আরও এক ছাত্র আটক

টাইগার নিউজ

atok-(2)_124448উগ্রবাদী তৎপরতায় জড়িত থাকার অভিযোগে সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সাদমান আবেদিনকে আটক করেছে পুলিশ। তিনি ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ছাত্র।

সকালে বিভাগের সামনে থেকে সাদমানকে আটক করে পুলিশের সন্ত্রাসবিরোধী বিশেষ শাখা কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের সদস্যরা। বিশ^বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর রাশেদ তালুকদার বিষয়টি নিশ্চিত করেন। এ নিয়ে জঙ্গি সন্দেহে এই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সম্প্রতি চার ছাত্রকে আটক করা হলো।

গত ১ জুলাই গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারিতে জঙ্গি হামলার পর জঙ্গি তৎপরতায় বিশ্ববিদ্যালয় পড়য়া শিক্ষার্থীদের সম্পৃক্ততার তথ্য মেলে। বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় নর্থ সাউথ, ব্র্যাক, মানারাত ইন্টারন্যাশনালের বেশ জনক শিক্ষার্থী আটকও হয়েছেন।

তবে শুরুর দিকে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের নাম বেশি আসলেও সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানেরও বেশ কজন শিক্ষার্থী আটক হয়েছেন।

আর্টিজান ও শোলাকিয়া হামলার পর সরকারি-বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে নজরদারি বাড়ানোর তাগিদ দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানেই জঙ্গিবিরোধী কমিটি গঠন করে প্রচার চলছে। সেই সঙ্গে সন্দেহভাজনদের ওপর নজরদারি করছে পুলিশ-র‌্যাবসহ বিভিন্ন বাহিনী ও গোয়েন্দা সংস্থা।

এর ধারাবাহিকতায় শাহজালালের ওই ছাত্রকে আটক করা হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ। সকাল সাড়ে ১০টার দিকে জালালাবাদ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে সঙ্গে নিয়ে সাদা পোশাকের লোকজন বিশ্ববিদ্যালয়ের আইআইসিটি ভবনের সামনে আসে। সেখানেই ছিলেন সাদমান।

জালালাবাদ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আখতার হোসেন জানান, ‘এর আগে আটক হওয়া জঙ্গিদের থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে এই শিক্ষার্থীকে আটক করা হয়েছে।’

এর আগে গত ১৮ জুলাই ইন্ডাস্ট্রিয়াল অ্যান্ড প্রোডাকশন ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষার্থী আব্দুল আজিজ এবং ২ আগস্ট একই বিভাগের ইফ্ফাত আহমেদ নাহিদকে আটক করে গোয়েন্দা পুলিশ। সবশেষে গত ৩ আগস্ট ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের শিক্ষার্থী মোহাম্মদ জুয়েল আহমদ নামেকে আটক করে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী। তাদের বিরুদ্ধে নিষিদ্ধঘোষিত দুটি জঙ্গি সংগঠনের সঙ্গে জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা।

তবে সাদমানের বিরুদ্ধে জঙ্গি তৎপরতায় জড়িত থাকার সুনির্দিষ্ট কী অভিযোগ আছে-তাৎক্ষণিকভাবে তা জানাননি পুলিশ কর্মকর্তারা। তারা বলেন, পরে এ বিষয়ে আদালতে বিস্তারিত জানানো হবে বলে জানান কর্মকর্তারা।

সূত্র : ঢাকাটাইমস

আপনার মতামত



close