সামগ্রীক স্বাস্থ্যর উন্নয়নই কমাবে হৃদরোগের ঝুকি

টাইগার নিউজ

Khulna Photo-2 (14. 08. 15)নিজস্ব প্রতিবেদক :: ‘প্রকৃতির সাথে একাত্ম হোন এবং হার্ট অ্যাটাক, স্ট্রোক, উচ্চ রক্তচাপ, ডায়াবেটিস প্রতিরোধ করুন’ এই শ্লোগানকে সামনে রেখে গতকাল শুক্রবার নগরীর পাঁচটি মরণব্যাধী প্রতিরোধে করণীয় বিষয়ে সেমিনার হয়েছে। ফিডেলিটি ট্রাস্ট এর উদ্দোগে নগরীর সিটি ইন হোটেলে অনুষ্ঠিত এই সেমিনারে সঞ্চলকের দায়িত্ব পালন করেন প্রবীণ আইনজীবী সংবিধানপ্রনেতা অ্যাডভোকেট এনায়েত আলী। সেমিনারে গবেষণাপত্র উপস্থাপন করেন হৃদরোগ বিষয়ের বিশিষ্ট গবেষক ডাঃ ওয়াহিদুজ্জামান।
সেমিনারে ডাঃ ওয়াহিদুজ্জামান বলেন- বর্তমানে দেশের প্রতিটি পরিবারের কেউ না কেউ হার্ট অ্যাটাক, স্ট্রোক, উচ্চ রক্তচাপ, ডায়াবেটিস এর মত মরণব্যাধীতে আক্রান্ত। আধুনীক চিকিৎসা বিজ্ঞানের মাধ্যমে এই ব্যাধীগুলো সহজেই প্রতিরোধ করা সম্ভব। এজন্য প্রয়োজন সামগ্রিক স্বাস্থ্যে’র উন্নয়ন করা। অর্থাৎ- সঠিক ও পরিমিত আহার, ব্যায়াম এবং টেনশন কমানোর কৌশল আয়ত্বের মাধ্যমে জীবনধারা পরিবর্তন ঘটানো। জীবধারার পরিবর্তনের সাথে ঔষধি গুণ সম্পন্ন কিছু খাদ্য ও পার্শ্বক্রিয়ামুক্ত ট্রাডিশনাল মেডিসিন হার্টকে ব্লক মুক্ত করে হার্ট অ্যাটাকের রোগিকে সুস্থ্য করা সম্ভব। যা গবেষণায় প্রমানিত। তিনি বলেন- ‘ব্লক কখনই বাইপাস অপারেশন কিংবা রিং পরানোর চিকিৎসা দ্বারা মুক্ত করা যায় না। এর জন্য প্রয়োজন সামগ্রিক স্বাস্থ্যে’র উন্নয়ন (হলিস্টিক হেলথ)।
ডাঃ ওয়াহিদুজ্জামান বলেন- সামগ্রিক স্বাস্থ্যের উন্নয়ন শুধু মরণব্যধিগুলোই প্রতিরোধ করে না, স্বাস্থ্যের এই উন্নয়ন মানুষকে দক্ষ মানব সম্পদ ও সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তোলে এবং মানবজীবন ও সমাজকে সফল করে তোলে। তিনি বলেন- গবেষণায় দেখা গেছে হার্ট অ্যাটাক ও স্ট্রোক এতই দ্রুত বেড়ে চলেছে যে, আজকের এই রোগ আগামীদিনে মহামারী আকার ধারণ করবে।
সেমিনারে খুলনার বিভিন্ন শ্রেনী ও পেশার বিপুল সংখ্যক মানুষ অংশগ্রহন করেন।

আপনার মতামত



close